ফাল্গুনের সাজে নিজেকে সাজিয়ে নিন

0
64

শীত প্রায় শেষ। আসছে বসন্ত।  বসন্ত শুরু হয় ফাল্গুন মাস দিয়ে। তাই ফাল্গুন মাসেই প্রকৃতি অপরুপ সাজে নিজেকে সাজিয়ে নেয়।  প্রকৃতির অপরুপ সাজ দেখলে মনের মধ্যে একটা আলাদা আমেজের সৃষ্টি হয়। প্রকৃতি তার নতুন সাজে বসন্ত কে আগমন জানায়। আর এই সময় নারী, পুরুষ, শিশু সবাই নিজেকে সুন্দর  সাজে সাজিয়ে নিতে ভালোবাসে। এভাবেই উৎসবের মধ্য দিয়ে সবাই বসন্ত বরণ করে নেয়।

● নারীরা বাসন্তী রঙের শাড়ী, খোপায় ফুল, হাতে লাল চুড়ি ও কপালে লাল টিপ দিয়ে বাঙালী সাজে নিজেকে রাঙিয়ে তোলে।

● আর ছেলেরা পাঞ্জাবী, ফতুয়া পড়ে, সাথে সানগ্লাস, আর ঘড়ি। তাদের পোশাকে থাকে ফাল্গুনের বাহার।

এই দিনে অনেকেই ঘুরতে যায়। কেউবা বন্ধুরা মিলে আবার কেউ কেউ পরিবার পরিজন মিলে একসাথে রঙিন সাজে সেজে ঘুরতে পছন্দ করে।

তাই সবাই যখন নতুন সাজে ব্যস্ত তখন আপনি কেন নয়। আপনিও নিজেকে সাজিয়ে নিন আর আমন্ত্রণ জানান বসন্তকে।

বসন্ত বরণে বা পহেলা ফাল্গুনের পোশাক, গয়না, চুলের স্টাইল ও মেকআপ নিয়ে আমি আপনাদের সামনে কিছু কথা তুলে ধরতে চাই। 

মেয়েদের সাজঃ

ফাল্গুনে মূলত মেয়েরাই বেশি সাজে। প্রতিটি মেয়েই এই দিনটিকে রঙিন সাজে সেজে উপভোগ করতে চায়। তাই মেয়েদের সাজ নিয়ে কিছু কথা আপনাদের মাঝে তুলে ধরলাম।

★ মেয়েদের পোশাকঃ

পহেলা ফাল্গুনে সব মেয়েরই পছন্দ থাকে বাসন্তী, হলুদ, হলদেটে, সবুজ, টিয়া রঙের শাড়ি। আবার অনেকে এই রঙের থ্রি-পিস পড়তে পছন্দ করে, আবার অনেকে কুর্তি, গাউন পড়ে। তবে যে যাই পড়ুক না কেন সবকিছুতেই ফুটে তুলতে হবে ফাল্গুনের আভাস।

★মেয়েদের মেক-আপঃ

যেহেতু দিনের বেলায় ঘুরতে যাবেন তাহলে অবশ্যই লুক টা হতে হবে ন্যাচারাল। আর তাই মেকআপ করতে হবে হালকা।

মেকাপের শুরুতেই মুখটা ভালো ভাবে ধুয়ে নিবেন, তারপর মুখে স্ক্রাবিং করবেন। তারপর মুখে সানস্ক্রিন লাগান ৫-৭ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার মেকাপ ব্যবহারের পালা, আর তাই ফাউন্ডেশনের আগে আপনার স্কিন টোনের সাথে মানানসই একটা প্রাইমার ব্যবহার করবেন। তারপর ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। মনে রাখবেন অতিরিক্ত ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করে হালকা করে লাগাবেন। চাইলে ফাউন্ডেশন না লাগিয়ে বিবি ক্রিম লাগাতে পারেন।  তারপর ফেইস পাউডার বা পাউডার লাগিয়ে নিন। ব্যস হয়ে গেল। এবার গালে হালকা গোলাপি বা লাল রঙের ব্লাশন লাগিয়ে নিন। চোখে ব্রাউন, গোল্ডেন, সোনালী, বাদামি রঙের আইশ্যাডো লাগান। এরপর চোখে মোটা করে কাজল দিন, একটু মাশকারা। আর ঠোঁটে লাগান হালকা রঙের লিপস্টিক। ব্যস হয়ে গেল আপনার মেকাপ।

আর কপালে একটা বড় গোল টিপ লাগাতে ভুলবেন না।

★ মেয়েদের জুয়েলারি বা গহনাঃ

যেহেতু আপনার সাজ পোশাক সবই হালকা তাই আপনি গহনা বাছাই করবেন দেশীয় টাইপ অর্থাৎ পু্ঁতির মালা, মাটির মালা, কানে মাটি, কাঠের বা পুঁতির দুল, আর হাতে অবশ্যই হাত ভর্তি কাঁচের চুড়ি। সবচেয়ে ভালো হয় ফুলের গহনা পড়তে পারলে। যদি গলায় গাদা ফুলের মালা, হাতে গাদা ফুলের তৈরি চুড়ি আর মাথায় ফুলের গহনা পড়া যায় তাহলে বেশি সুন্দর লাগে আর ফাল্গুনের আমেজ আসে।

★ মেয়েদের চুলের সাজঃ

আপনি যদি শাড়ি পড়েন তাহলে চাইলে চুলটা খোলা বা খোপা বা বেণি করতে পারেন। খোপা করলে খোপায় ফুল গুঁজে দিবেন। আর চুল খোলা রাখলে বা বেণি করলে চুলটা একপাশে করে আরেক পাশে গোলাপ ফুল গুঁজে দিতে পারেন। আর যদি অন্য পোশাক পড়েন তাহলেও আপনি চুল খোলা বা ক্লিপ দিয়ে চুল টা বেঁধে নিতে পারেন। তবে ফুল অবশ্যই থাকতে হবে। আবার চাইলে ফুলের মালা দিয়েও জড়িয়ে নিতে পারেন আপনার চুল।

ব্যস হয়ে গেল আপনার আকর্ষণীয় লুক। এবার বাইরে বেরিয়ে পড়ুন আর আনন্দে মেতে উঠুন।

ছেলেদের সাজঃ

ফাল্গুনে ছেলেরাও সাজে একটু ভিন্ন ভাবে। যদিও ছেলেদের সাজের মধ্যে আলাদা কোন ব্যপার নেই তবুও তাদের পোশাকের মাধ্যমে ফাল্গুনের আমেজ ফুটে ওঠে।

★ ছেলেদের পোশাকঃ

ছেলেরা পাঞ্জাবী পড়লে এই সময় বেশি ভালো লাগে। তবে ফতুয়া বা টি-শার্ট যাই হোক না কেন তাতে ফাল্গুনের ভাব থাকতে হবে। পোশাকের রঙ হতে পারে, বাসন্তী, হলুদ, সবুজ বা লাল রঙের। আর পোশাকটা যদি হয় একটু গ্রামীণ চেকের তাহলে আরো বেশি ভালো লাগে।

★ছেলেদের মেকাপঃ

আমরা জানি ছেলেরা তেমন মেকাপ করে না। তবে উৎসব বলে কথা এই সময় একটু ভিন্ন লুক না হলেই না। তাই ছেলেরা চাইলে একটু নিজেকে সাজিয়ে নিতে পারেন। যেমন ধরুন চুলটা একটু ট্রেডিশনাল লুকে সাজিয়ে নিন। এজন্য আপনি জেল ব্যবহার করতে পারেন। দিনের বেলা গরম থাকবে তাই হালকা পোশাক পরিধান করুন।

অন্যান্যঃ

ছেলেদের যেহেতু তেমন সাজের প্রয়োজন হয় না সেহেতু কিছু জিনিস সাথে রাখতে পারেন। যেমন ধরুন, রোমাল, ঘড়ি, সানগ্লাস। পান্জাবী অথবা ফতুয়ার সাথে চাইলে মাথায় একটা গামছা বেঁধে নিতে পারেন আর যদি তা না চান সেক্ষেত্রে গামছা গলায় পেঁচিয়ে নিতে পারেন।

ব্যস তাহলেই আপনাকে দেখাবে সবার চেয়ে আলাদা। এবার বন্ধুদের নিয়ে বেরিয়ে পড়ুন অথবা আপনার পরিবারের লোকেদের সাথে অথবা আপনার প্রিয় সঙ্গীর সাথে।

টিপসঃ

ফাল্গুন সম্পর্কিত কিছু টিপস দেয়া হলো আশা করছি উপকারে আসবে।

১. শাড়ির সাথে মানানসই ব্যাগ নিতে পারেন তাহলে আরেকটু বেশি ভালো লাগবে।

২. সারাদিন যদি ঘুরাঘুরির প্ল্যান থাকে তাহলে অবশ্যই সাথে পানি রাখবেন কারণ পানি আপনার ক্লান্তি ভাব দূর করবে।

৩. উঁচু হিলের জুতা না পড়ে ফ্ল্যাট জুতা পড়বেন তাহলে হাঁটতে অসুবিধা হবে না।

৪. গরমে ঘেমে মেকাপ নষ্ট হতে পারে এজন্য ভেজা রোমাল বা ওয়েট টিস্যু রাখবেন আর তা দিয়ে চেপে চেপে মুখ মুছে নিবেন।

৫. বারবার মেকাপ না করে একই মেকাপ একটু পর পর ঠিক করে নেয়াটাই ভালো।

৬. সারাদিন ঘুরাঘুরির কারনে চুলে অনেক ময়লা জমে যেতে পারে তাই চুলে তেল লাগিয়ে নিবেন।পরের দিন শ্যাম্পু করে ধুয়ে নিবেন।

৭. একটু বিরতি নিয়ে কিছু খেয়ে নিবেন।

৮. আর অবশ্যই সচেতন থাকবেন যাতে করে আপনার অথবা আপনার পরিচিত জনের কোন ক্ষতি না হয়।

পরিশেষে,

ফাল্গুনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা সবাইকে। সবার পহেলা ফাল্গুন কাটুক খুব সুন্দর ও আনন্দময়। ফাল্গুনের নতুণত্ব সবার জীবনে বয়ে আনুক সুখ ও সমৃদ্ধি।